কম্পিউটার ভাইরাস আক্রান্ত হবার লক্ষণ সমূহ সর্বশেষ আপডেট তথ্য ২০২০

আপনার যদি একটি কম্পিউটার থাকে এবং আপনি ভাইরাস আক্রমণ এর লক্ষণ সম্পর্কে সচেতন না হন তাহলে এটা আপনার জন্য বিপদজনক হতে পারে।

আজকে আমরা কম্পিউটারে কি কি লক্ষণ দেখলে বুঝা যাবে যে কম্পিউটারটি ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছে তা নিয়ে বিস্তারিত জানতে চেষ্টা করবো।

সূচিপত্রটা একটু দেখুনঃ-

কম্পিউটার ভাইরাস আক্রমনের লক্ষণগুলোঃ

কম্পিউটার চালু হতে পূর্বের তুলনায় বেশি সময় নিয়ে থাকলে

আপনার কম্পিউটার কি আগের চাইতে বেশি সময় নিচ্ছে চালু হতে? যদি আপনি এমন কিছু খেয়াল করেন আপনার কম্পিউটার এ তাহলে আপনার এখনই সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নেয়া উচিত। কারণ এটি ভাইরাস আক্রমণের প্রাথমিক লক্ষণ গুলোর মধ্যে অন্যতম।

কম্পিউটার চালু হতে স্বাভাবিক সময় এর বেশি নেয়া মানে এমন সিগনাল প্রদান করা যে আপনার সিস্টেম সঠিক ভাবে চালু হতে পারছেনা। সুতরাং বিষয়টি আপনার সতর্কতার সাথে দেখা উচিত।

হঠাৎ করে আপনার ফাইল উধাও হয়ে যাওয়া বা ফাইলের নাম পরিবর্তিত হয়ে যাওয়া

আপনি যদি লক্ষ করেন যে আপনার কম্পিউটারে হঠাৎ কোনো ফাইল হারিয়ে গেছে বা নাম অটোমেটিক পরিবর্তিত হয়ে গে:ছে তাহলে বুঝতে হবে যে আপনার ল্যাপটপ বা কম্পিউটার এ ভাইরাস এর আক্রমণ দেখা দিয়েছে।

সুতরাং এমন কিছু আপনার নজরে এলে সাথে সাথে ব্যবস্থামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত।

ড্রাইভের নাম পরিবর্তিত হয়ে যাওয়া

হঠাৎ করেই যদি আপনি দেখেন যে আপনার কম্পিউটার ড্রাইভগুলোর ভেতর কোনো একটি ড্রাইভের নাম পরিবর্তিত হয়ে গেছে তাহলে আপনি অনুমান করতে পারেন যে আপনার পিসি বা ল্যাপটপে ভাইরাস সংক্রামণ দেখা দিয়েছে।

কারণ ভাইরাস আক্রমণের প্রাথমিক উপসর্গ গুলোর ভেতর এটি অন্যতম একটি উপসর্গ।

অস্বাভাবিক এরর সংকেত বার বার দেখা দিতে থাকলে

আপনার পিসিতে যদি এমন হয় যে আপনি যখন কোনো একটি ফাইল ওপেন করতে যাচ্ছেন বা কোনো কমান্ড প্রদান করছেন তখন বার বার এরর সিগনাল দেখাচ্ছে তখন বুঝতে হবে যে আপনার পিসিতে ভাইরাস এর আক্রমণ দেখা দিয়ে থাকতে পারে।

এ ধরনের সংকেত বার বার পরিলক্ষিত হলে আপনার দ্রুত প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা নেয়া উচিত হবে।

সিস্টেমে যদি সময় ও তারিখ অটোমেটিক পরিবর্তিত হয়ে যায়

যদি এমন টা খেয়াল করেন যে আপনার কম্পিউটার এ তারিখ ও সময় অটোমেটিক পরিবর্তিত হয়ে যাচ্ছে তাহলে বিষয়টি আপনার গুরুত্বের সাথে নেয়া উচিত । কারণ এটি ভাইরাস আক্রমণের পূর্ব লক্ষণগুলোর ভিতর অন্যতম।

সিস্টেমে এমন ত্রুটি দেখা দিলে আপনার যত দ্রুত সম্ভব প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা নেয়া উচিত হবে।

নতুন ফাইল সংরক্ষণ বা প্রিন্ট করতে অধিক সময় লাগা

আপনার পিসিতে আপনি যখন নতুন ফাইল সেভ করতে যান তখন যদি লক্ষ্য করেন যে এটি অনেক বেশি সময় নিচ্ছে তাহলে আপনি এটা ধরে নিতে পারেন যে আপনার কম্পিউটার এ ভাইরাস হানা দিয়ে থাকতে পারে।

কাজেই আপিনি এ ধরনের কিছু খেয়াল করা মাত্র দ্রুত ব্যবস্থা মূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করুন।

কম্পিউটার এর স্বাভাবিক কাজ গুলো ধীরে ধীরে স্লো হয়ে যাওয়া

যদি এমন টা দেখা যায় যে আপনার কম্পিউটার এর স্বাভাবিক কাজ গুলো শেষ করতে প্রয়োজনের তুলনায় বেশি সময় লাগছে সেক্ষেত্রে আপনাকে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

করণ ভাইরাস আক্রমণ এর লক্ষণ গুলো ভিতর এই লক্ষণটিও অন্যতম বলে বিবেচিত হয়। তাই এমন কিছু দেখলে আপনি দ্রুত ভাইরাস প্রতিরোধ মূলক ব্যবস্থা নিন।

কম্পিউটার চলতে চলতে হঠাৎ বন্ধ হয়ে যায় বা হ্যাং হয়ে যায়

আপনার কম্পিউটার যদি চলতে চলতে হঠাৎ বন্ধ বা হ্যাং হয়ে যাবার লক্ষণ দেখা দেয় তাহলে আপনার উচিত হবে ভাইরাস প্রতিরোধ করতে সক্ষম এমন সফ্টওয়্যার ব্যবহার করা।

কারণ এটি ভাইরাস আক্রমণের পূর্ব লক্ষণ গুলোর ভিতর অন্যতম একটি কারণ।

COM বা EXE জাতীয় ফাইলের আকার বেড়ে যাওয়া

ভাইরাস আক্রমনের কারণগুলোর ভেতর এটি অন্যতম কারণ । যদি আপনি এমন টা আপনার পিসিতে দেখেন যে আপনার এ জাতীয় ফাইলগুলো আকার আগের তুলনায় অনেক বেড়ে গেছে তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনার পিসি ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে।

ফোল্ডার এর ভিতর ফোল্ডার এর নাম সহ শেষে .exe এক্সটেনশন যুক্ত ফাইল দেখতে পাওয়া

এটি একটি সাধারন সমস্যা যা প্রায় ভাইরাস আক্রান্ত প্রতিটি পিসিতেই দেখতে পাওয়া যায় । আপনি যদি আপনার পিসিতে এরকম একটি ফোল্ডার এর ভিতর ওই ফোল্ডার এর নাম সহ একটি বাড়তি ফোল্ডার পান যা আপনি নিজে তৈরি করেন নি তাহলে আপনি ধরে নিতে পারেন যে আপনার পিসি ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে।

ডিস্কে ব্যাড সেক্টর এর পরিমাণ পূর্বের চেয়ে বেড়ে যাওয়া

আপনার পিসির ব্যাড সেক্টর যদি আগের চেয়ে বেড়ে যেযে থাকে তাহলে আপনি ধরে নিতে পারেন যে আপনার পিসিতে ভাইরাস এর আক্রমণ দেখা দিয়েছে।

পর্দায় অপ্রত্যাশিত ছবি দেখা বা শব্দ শুনতে পাওয়া ভাইরাস আক্রমণের লক্ষণ

আপনার কম্পিউটার স্ক্রিন এ আপনি যদি কোনো অস্বাভাবিক ছবি দেখতে পান যা আপনি নিজে থেকে তৈরী করেন নি বা এমন কোনো শব্দ শুনতে পান যা আপনার কাছে অস্বাভাবিক বলে মনে হয় তাহলে আপনি ধরে নিতে পারেন যে আপনার পিসি ভাইরাস দ্বারা সংক্রামিত হয়েছে।

কম্পিউটার শাট ডাউন হতে অনেক বেশি সময় লাগা

আপনার কম্পিউটার যদি বন্ধ হতে অনেক বেশি সময় নেয় তাহলে আপনি কম্পিউটার এর ভাইরাস প্রতিরোধ ক্ষমতা যাচাই করুন ভালো করে। এর পরও যদি আপনি দেখেন যে শাট ডাউন হতে অনেক বেশি সময় লাগছে তাহলে আপনি ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয় অন্যান্য ব্যবস্থা সমূহ গ্রহণ করুন।

কম্পিউটার ফাইলের কিছু অংশে অবাঞ্ছিত চিহ্ণ বা বার্ত দেখা দেয়া

এটাও ভাইরাস আক্রমণের একটি লক্ষণ। আপনার পিসি বা ল্যাপটপে এমন কিছু দেখতে পেলে আপনাকে তাৎক্ষণিক প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নিতে হবে।

সবশেষে বলতে চাই আপনার পিসিতে যদি উপরের বর্ণিত কোনো একটি লক্ষণও দেখা দেয় তাহলে আপনার উচিত সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাস প্রটেকশন এর জন্য কার্যকর পদক্ষেপ গুলো গ্রহণ করা।

কম্পিউটার ভাইরাস আক্রান্ত হবার লক্ষণ সমূহ সর্বশেষ আপডেট তথ্য ২০২০
কম্পিউটার ভাইরাস আক্রান্ত হবার লক্ষণ সমূহ

frlmamun

আমি এফ. আর. আল-মামুন । আমারহাট ডট কম ওয়েবসাইটের প্রতিষ্ঠাতা । আমি সৃষ্টিশীল কাজ করতে পছন্দ করি এবং যারা সৃষ্টিশীল কাজ করে তাদেরকে ভালোবাসি । আপনিও যদি সৃষ্টিশীল কিছু করতে চান তাহলে আপনিও আমারহাটে আমন্ত্রিত!!! ধন্যবাদ।

Leave a Reply